সবার আগে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে এল রাশিয়া

রাশিয়া নিয়ে এল করোনা ভাইরাসের টিকা। সে দেশের রাষ্ট্রপতি ভ্লাদিমির পুতিন ঘোষণা করেছেন, কোভিড ১৯-এর টিকাকরণের অনুমতি দেওয়ায় হয়েছে তাঁর দেশে। তাঁর এক মেয়েকে ইতিমধ্যে সেই টিকা দেওয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন পুতিন। মঙ্গলবার সরকারি একটি বৈঠকে অংশ নিয়ে পুতিন জানান, বিভিন্ন পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে করোনা ভাইরাসকে বধ করার যোগ্যতা অর্জন করেছে ওই টিকা। রাশিয়ার সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, প্রথম ধাপে মেডিক্যাল কর্মী, শিক্ষক ও ঝুঁকির কাজে থাকা বিভিন্ন ব্যক্তিকে এই টিকা দেওয়া হবে।

           রাশিয়ার অর্থ দফতরের প্রধান কিরিল দিমিত্রিভ ভ্যাকসিন আবিষ্কারকে ১৯৫৭ সালে সোভিয়েত ইউনিয়নের দ্বারা বিশ্বের প্রথন স্যাটেলাইট লঞ্চের সঙ্গে তুলনা করেছেন। মূলত এই অর্থ দফতরই ভ্যাকসিন গবেষণায় অর্থ সরবরাহ করেছে। তবে এখনও পর্যন্ত এই ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক ব্যবহারের কোনও বিজ্ঞানভিত্তিক ডেটা প্রকাশ করেনি রাশিয়া।

          তবে ফেজ থ্রি ট্রায়ালের আগেই এই টিকাকে অনুমোদন দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিভিন্ন দেশের বিজ্ঞানিরা। তৃতীয় ধাপের পরীক্ষায় কয়েক হাজার মানুষের উপর টিকা প্রয়োগ করে তার গুণাগুণ দেখে নিতে সময় লাগে মাসখানেক। এত কিছু বাদানুবাদের মধ্যেই নতুন তৈরি এই ভ্যাকসিন নিয়ে চাহিদা বিপুল ৷ ইতিমধ্যেই ২০টি দেশ থেকে কোটি কোটি ভ্যাকসিনের প্রি-অর্ডার এসে গিয়েছে তাদের কাছে ৷ অর্ডারের পরিমাণ প্রায় ১ বিলিয়ন বা ১০০ কোটির কাছাকাছি ৷ এমনটাই দাবি রাশিয়ার ৷ ভ্যাকসিন প্রস্তুতির সঙ্গে জড়িত সমস্ত কর্মীদেরও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন পুতিন। পুতিনের বিশ্বাস, খুব শিগগিরই গণহারে এই ভ্যাকসিন উৎপাদন করে ফেলতে পারবে রাশিয়া। রুশ প্রেসিডেন্টের নির্দেশ অন্তত ৬০ শতাংশ রুশ নাগরিকের শরীরে করোনা টিকা দিতে হবে। রাশিয়ার পরিকল্পনা এই বছর অন্তত চার কোটি টিকা বাজারে আনার।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s