রাজ্যে এল আরও একটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি

করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ভূমিকায় যথেষ্ট প্রশংসা করল রাষ্ট্রসংঘ অনুমোদিত সংস্থা। করোনার মতো এত ব্যাপক আকার ধারণ করা মহামারীর সময় বাংলার সরকার যে পদক্ষেপ করেছে, তার ভূয়সী প্রশংসা করেছে রাষ্ট্রসংঘের শান্তি পরিষদ।

       ইতিমধ্যেই রাষ্ট্রসংঘের তরফে রাজ্যকে পাঠানো একটি শংসাপত্রে রাজ্য সরকারের ভূমিকার প্রশংসা করা হয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ সরকার এমন জটিল পরিস্থিতিতেও যেভাবে জনদরদী ভাবমূর্তি নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে, রাষ্ট্রসংঘের তরফে পাঠানো ‘সিম্বল অফ গ্র্যাটিটিউড’ শংসাপত্রে সেই পদক্ষেপগুলিকে সাধুবাদ জানানো হয়েছে। বলা হয়েছে রাজ্যের একাধিক পদক্ষেপের জেরে উপকৃত হয়েছেন রাজ্যবাসী।

        রাষ্ট্রসংঘের শান্তি পরিষদের সদর দফতর থেকে রাজ্যের মন্ত্রী তথা রোগী কল্যান সমিতির সভাপতি ডাঃ নির্মল মাজিকে ইমেল পাঠানো হয়েছে। সেখানে করোনা মোকাবিলায় নির্মল মাজির উদ্যোগেরও প্রশংসা করেছে রাষ্ট্রসংঘ অনুমোদিত সংস্থা। চিঠিতে রাষ্ট্রসংঘের শান্তি পরিষদ লিখেছে, করোনা মহামারীর সময়ে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার সাধারণ মানুষের স্বার্থে একাধিক ভালো কাজ করেছে। একইসঙ্গে রাজ্যের প্রতিনিধিদেরও জাপানে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে রাষ্ট্র সংঘের শান্তি পরিষদের তরফে।

        সম্প্রতি নয়াদিল্লিতে ৬৬তম স্কচ সামিটে স্কচ ফাউন্ডেশনের তরফে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন সরকারের জন অভিযোগ সেল পেয়েছে প্ল্যাটিনাম পদক। আবারও একটি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি এল রাজ্যে।এমন কৃতিত্বের পর নির্মল মাঝি জানিয়েছেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সততা এবং দায়বদ্ধতা নিয়ে সাধারণ মানুষের জন্যে কাজ করে চলেছেন। আমি তাঁর একজন সৈনিক। কীভাবে মানুষকে ভাল পরিষেবা দেওয়া যায়, তা দিদির থেকেই শেখা। এই সম্মান আমি আমার পথপ্রদর্শক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উৎসর্গ করলাম।’

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s