ডিসেম্বরের শুরুতেই মডার্না ভ্যাকসিন আনতে পারে

আমেরিকার তরফে দাবি করা হয়েছে, MODERNA নামে সংস্থা ইতিমধ্যেই করোনার নামে ভ্যাকসিন তৈরি করে ফেলেছে৷ সংস্থার তরফে দাবি করা হয়েছে, যে সমস্ত রোগীদের এই ওষুধ দেওয়া হয়েছে তাদের মধ্যে ৯৪.৫ শতাংশে সফল হয়েছে৷ সংস্থার তরফে একটি বয়ানে দাবি করা হয়েছে যে তারা করোনার ভ্যাকসিন তৈরি করে নিয়েছে ৷ সংস্থার সিইও জানিয়েছেন, ওষুধের দাম ডিমান্ডের উপর নির্ভর করবে৷ এই অগ্রগতির ওপর ভিত্তি করে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ডিসেম্বরের শুরুতে কোভিড টিকাকরণ শুরু করতে পারে বলে জানা যাচ্ছে। জানা গিয়েছে, অনুমতি পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ভ্যাকসিন পাঠানো শুরু করে দেওয়া হবে ৷ এই কাজ ১১ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে শুরু করা হতে পারে ৷ মডার্না ভ্যাকসিনের একটি ডোজের জন্য সরকারের থেকে ২৫-৩৭ মার্কিন ডলার অর্থাৎ ১৮৫৪-২৭৪৪ টাকা নেওয়া হতে পারে৷ চূড়ান্ত ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল পর্যন্ত নির্ধারিতভাবে কোনোকিছু ঘোষণা করা হবে না ৷ তবে চূড়ান্ত ডেটা মিলতেই অনুমতি নিয়ে মার্কেটে নিয়ে আসা হবে৷
এদিকে ফাইজার(Pfizer)-ও দাবি করছে তারা ডিসেম্বরের মাঝামাঝি সময়ে ভ্যাকসিন নিয়ে চলে আসবে। এছাড়াও ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক হিসেবে এবং বাজারে তা শীঘ্র আনার ক্ষেত্রে সামনের সারিতে রয়েছে অ্যাস্ট্রাজেনেকা(AstraZeneca), নোভাভ্যাক্স(Novavax Inc) এবং জনসন এন্ড জনসন(Johnson & Johnson)। কিন্তু সকলের আশঙ্কা মূলত একই। বিশ্ব বাজারে ভ্যাকসিন একবার এসে গেলে তার যা চাহিদা হবে, তা আদৌ পূরণ করা সম্ভব হবে কি না। ইংল্যান্ডের কীলি ইউনিভার্সিটির আইন এবং সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ মার্ক এক্লেস্টন টার্নার জানান, সারা পৃথিবীতে বেশিরভাগ মানুষ দারিদ্রসীমার নিচে বসবাস করে। শুধুমাত্র তারা আমাদের কাছ থেকে দূরে আছে বলেই সমস্যার কারণ তা নয়, এই সমস্যা সকলের।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s