তৃণমূলের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিলেন শুভেন্দু

তৃণমূলের বিধায়ক পদ থেকে ইস্তফা দিলেন প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। বুধবার বিধানসভায় গিয়ে নিজের হাতে লেখা পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। তবে সূত্রের খবর, এদিন স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় শুভেন্দু অধিকারী পৌঁছনোর অনেকটা আগেই বিধানসভা ছেড়ে বেরিয়ে যান। শুভেন্দু অধিকারী পদত্যাগপত্র দেন বিধানসভার সচিবের হাতে। বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় এ ব্যাপারে ফোনে বলেন, ‘আমি এখন কর্মসূচিতে ব্যস্ত। বিধায়ককে আমার কাছে পদত্যাগ পত্র দিতে হয়। পদত্যাগ পত্র গ্রহণের কোনওরকম অথরিটি নেই বিধানসভা সচিবের। নিয়ম অনুযায়ী আমাকে হাতে করে বিধায়ককে পদত্যাগ পত্র পাঠাতে হয়। তবেই গ্রহণ করা হয়। শুভেন্দু অধিকারী পদত্যাগ পত্র দেওয়ার জন্য আমার কাছে সময় চাইতে পারতেন। কিন্তু তিনি তা চাননি।’
২০০৬ সালে শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূলের টিকিটে কাঁথি দক্ষিণ বিধানসভা থেকে জয়লাভ করেন।২০০৯ সালে তমলুক থেকে লোকসভা নির্বাচনে জয়যুক্ত হয়ে শিল্প দফতরের স্থায়ী কমিটির সদস্য হন। ২০১১ সাল থেকে তিনি ছিলেন হলদিয়া উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান। শুভেন্দু তৃণমূলের সঙ্গে সব সম্পর্ক ত্যাগ করলেন ধাপে ধাপে। তাঁর এই ইস্তফাপত্র স্পিকার গ্রহণ করলে শুভেন্দু-তৃণমূলের ২০ বছরের বেশি সময়ের সম্পর্কে পূর্ণচ্ছেদ পড়বে। শোনা যাচ্ছে শুভেন্দু শনিবারই অমিত শাহের উপস্থিতিতে নিজের ঘরের মাঠে, বিজেপিতে যোগদান করতে পারেন।
এ দিকে, আগেই নাম না-করে মেদিনীপুরে শুভেন্দু অধিকারীকে জোরালো বার্তা দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে। মঙ্গলবার জলপাইগুড়িতে নন্দীগ্রামের বিধায়কের বিরুদ্ধে সুর আরও চড়ান তৃণমূলনেত্রী। জানিয়ে দেন, নির্বাচনের সময় যাঁরা বিরোধীদের সঙ্গে বোঝাপড়া করেন, তাঁদের তিনি কোনও মতেই মেনে নেবেন না। বুধবারও একটি সভায় মমতা নাম না-করে শুভেন্দুকে একহাত নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s