সম্পূর্ণ ‘পেপারলেস’ হবে ২০২১-এর বাজেট

করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে সম্পূর্ণ ‘পেপারলেস’ হবে ২০২১-এর বাজেট৷ এমনটাই সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় সরকার। সিদ্ধান্ত যে ঐতিহাসিক তা বিশেষজ্ঞরা এককথায় মানছেন। এই বিষয়ে কেন্দ্র সংসদের উভয় কক্ষে থেকেই অনুমোদন নিয়েছে৷ অর্থনৈতিক সমীক্ষার ক্ষেত্রেও এবার এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে।
বাজেটের গোপনীয়তা বজায় রেখে প্রতি বছর সারা রাত ধরে বাজেটের পেপার ছাপা হয়। তারপর পেপারগুলিকে সিল করে বাজেটের দিন পেশ করা হয় সংসদে৷ বহু মানুষ এই কাজের সঙ্গে যুক্ত থাকেন৷ এক্ষেত্রে প্রচুর মানুষের উপস্থিতিতে সংক্ৰমণ ছড়াতে পারে। এছাড়াও বাজেটের সব কাগজপত্র ছাপার জন্য ছাপাখানায় নিয়ে যাওয়ার আগে অর্থমন্ত্রকের তরফে ‘হালুয়া উত্‍সব’ হয়। একটি বড় কড়াইয়ে এই হালুয়া বা সুজি তৈরি করা হয়, পরে তা মন্ত্রকের সমস্ত কর্মী ও আমলাদের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হয়। এ বছর সেই উৎসব হতেও পারে আবার নাও হতে পারে। হালুয়া উৎসব হলেও সীমিত সংখ্যক উপস্থিতিতে উৎসব হবে। আগামী ২৯ জানুয়ারি থেকে সংসদে বাজেট অধিবেশন শুরু হতে পারে। প্রথম দফায় বাজেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে ২৯ জানুয়ারি থেকে ১৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। দ্বিতীয় দফায় ৮ মার্চ থেকে চলবে ৮ এপ্রিল পর্যন্ত। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন বাজেট পেশ করবেন।
এবারের বাজেট অবশ্যই যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ। প্রতিবার যদিও বাজেট নিয়ে চ্যালেঞ্জ থাকে, কিন্তু এবারের বাজেট অতিমারি সময়ের বাজেট। অর্থনীতিতে বেহাল দশা। সেই পরিস্থিতিতে কোন দিকমার্গ দেখাবেন অর্থমন্ত্রী সেদিকেই তাকিয়ে গোটা দেশ।

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s